ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষকের এডুকেশনাল লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড অর্জন

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর এনার্জি রিসার্চ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শাহরিয়ার আহমেদ চৌধুরী ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেসের সবচেয়ে সম্মানজনক এডুকেশনাল লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন।নবায়ন যোগ্য জ্বালানির উপর শিক্ষা, গবেষণা ও শিক্ষকতায় অবদানের জন্য ৫ ও ৬ জুলাই মুম্বাইতে অনুষ্ঠিত ৭ম ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেসে এ পুরস্কার দেয়া হয়েছে।

১৯৯৭ সালে বুয়েট থেকে তড়িৎ ও ইলেকট্রনিকস কৌশলে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। পড়াশোনা শেষে তিনি বাংলাদেশ বিদ্যুৎ ঊন্নয়ন বোর্ড এবং ডেসা’র  প্ল্যানিং ও ডিজাইন -এ প্রায় এক দশক কাজ করেন।পরবর্তীতে জার্মানীর ইউডডনিভার্সিটি অব ওল্ডেনবার্গ থেকে সর্বোচ্চ নম্বর নিয়ে নবায়নযোগ্য শক্তি বিষয়ে এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। সেখানে গবেষণা করে শাহরিয়ার এমন এক সৌরবিদ্যুৎ কোষ (সোলার সেল) আবিষ্কার করলেন, যা সে সময়ে সূর্যের আলো থেকে প্রচলিত সোলার প্যানেলের চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারে।

শাহরিয়ার চৌধুরী ৪৫টিরও বেশি বই-অধ্যায়, জার্নাল এবং সম্মেলন-বক্তৃতার লেখক। তিনি প্রায় ১,৭০০ জন কারিগরি পেশাদারকে সোলার ফটো ভোল্টাইক সিস্টেমের নকশা, কার্যক্রম এবং ব্যবস্থাপনা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। ২০১৬ সালে তাঁর ‘পিয়ার-টু-পিয়ার স্মার্ট ভিলেজ গ্রিড’ শীর্ষক একটি গবেষণা প্রকল্প মরক্কোতে জাতিসংঘের ২২ তম জলবায়ু সম্মেলনে ‘ইউএন মোমেন্টাম ফর চেঞ্জ’ অ্যাওয়ার্ড এবং জার্মানির মিউনিখে ‘ইন্টারসোলার অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ জিতেছে। ‘স্মার্ট সোলার ইরিগেশন সিস্টেম’ শীর্ষক তার আরও একটি গবেষণা প্রকল্প বাংলাদেশ সরকারের বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘অদম্য বাংলাদেশ- ২০১৬” পুরস্কার লাভ করে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য ২৮টিরও বেশি সোলার ডিজেল হাইব্রিড মিনিগ্রিডের নকশা করেছেন শাহরিয়ার।

আবু সাদাত

উপ-পরিচালব (জনসংযোগ)

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

Share This:

Tags: